ওয়ারেন্টি নিয়মাবলী

কম্পিউটার প্লানেট (Computer Planet) থেকে পণ্য কেনার আগে ক্রেতার জন্য নিচের ওয়ারেন্টি নিয়মাবলী পড়ে নেয়া জরুরী। কারণ কোন পণ্য বিক্রির সাথে সাথে ধরে নেয়া হবে যে এই নিয়মাবলীর প্রতিটি শর্ত ক্রেতা মেনে নিচ্ছেন।

পণ্য বিক্রির সময় যে সমস্ত প্রোডাক্টের ওয়ারেন্টি ঘোষণা করা হয় সেগুলো মুলত “ম্যানুফেকচারিং ওয়ারেন্টি”। অর্থাৎ বিক্রিত পণ্যের ওয়ারেন্টির দায়িত্ব নির্মাতা তথা মূল ব্র্যান্ড কোম্পানি বহন করে থাকে। প্রতিটি ব্র্যান্ডের পণ্যের ওয়ারেন্টির শর্তাবলী ভিন্ন ভিন্ন হয়ে থাকে যা তাদের নিজস্ব ওয়েবসাইটে পরিষ্কারভাবে উল্লেখ করে রেখেছে।

এক্ষেত্রে কম্পিউটার প্লানেট পণ্যটি ক্রেতার কাছে বিক্রি করছে মাত্র এবং মূল ব্র্যান্ড কোম্পানির ওয়ারেন্টি শর্ত কার্যকরী করার ক্ষেত্রে সহযোগিতা করছে।

প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত ওয়ারেন্টির সাধারণ শর্তাবলী

• বিক্রিত সকল পণ্যতেই ওয়ারেন্টি নেই। যে পণ্যগুলোর বিপরীতে ওয়ারেন্টি মেয়াদ ঘোষণা করা আছে শুধুমাত্র ঐ পণ্যগুলই ঘোষিত মেয়াদ পর্যন্ত ওয়ারেন্টি সুবিধার আওতাভুক্ত থাকবে।

• প্রডাক্ট লাইফ টাইম ওয়ারেন্টির ক্ষেত্রে যতদিন প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান তথা মূল ব্র্যান্ড কোম্পানি পণ্যটি উৎপাদন অব্যাহত রাখবে ততদিন ক্রেতা প্রডাক্ট লাইফ টাইম ওয়ারেন্টির আওতায় ওয়ারেন্টি সুবিধা পাবে। যদি পণ্যটির উৎপাদন বন্ধ হয়ে যায় তাহলে পণ্যটি ক্রয়ের তারিখ থেকে ১ বছর মেয়াদের জন্য ওয়ারেন্টির আওতাভুক্ত থাকবে।
• ওয়ারেন্টির আওতাভুক্ত কোন পণ্য বিক্রির পর যদি তাতে ত্রূটি ধরা পড়ে, তবে মেরামতের মাধ্যমে সেই ত্রূটি সারিয়ে দেয়া হয়।
• কোন কারণে পণ্যটি মেরামত করার অযোগ্য হলে একই মডেলের অন্য আরেকটি পণ্য দিয়ে বদলে দেয়া হতে পারে।

• ক্রেতা যখন পণ্যটি ব্যবহার করবেন তখন কিংবা “কম্পিউটার প্লানেট” সার্ভিসের সময় যদি কোন সফটওয়্যার বা ডাটা নষ্ট কিংবা হারিয়ে যায় তার জন্য “কম্পিউটার প্লানেট” কোন দায়িত্ব নিবে না। এক্ষেত্রে ডাটা পুনরুদ্ধার বা সফটওয়্যার পুনস্থাপনের কাজের দায়িত্ত্বও “কম্পিউটার প্লানেট”র উপর বর্তাবে না।
• অসতর্ক ব্যাবহার, পানিতে ভিজে যাওয়া, উপর থেকে পড়ে যাওয়া, পুড়ে যাওয়া, আঘাতপ্রাপ্ত হওয়া প্রভৃতি কারণে কোন ত্রুটি দেখা দিলে তা ওয়ারেন্টির আওতায় থাকবে না।
• ওয়ারেন্টির আওতায় নেয়া কোন মেরামতের কাজ কতদিনের মাঝে সমাধান করে ফেরত দেয়া যাবে তা নিশ্চিত করে উল্লেখ করা যায় না। তা ৪/৫ দিনের মাঝেই সমাধান হতে পারে কিংবা আরও অনেক বেশী দিন সময় লেগে যেতে পারে। কারণ কোন কোন ক্ষেত্রে মেরামতের জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রাংশ বিশেষভাবে আমদানী করে আনতে হয় যা ৪৫ দিন পর্যন্তও সময় নিয়ে থাকে।
• বিক্রির সময় যে কম্পিউটার সেটআপ ও অপারেটিং সিস্টেম কাস্টমাইজেশন করে দেয়া হয় তা ওয়ারেন্টির আওতায় থাকে না।
• ল্যাপটপ, ডেস্কটপ কিংবা কোন পণ্য ডেলিভারির সময় “কম্পিউটার প্লানেট” কোন প্রকারের পাসওয়ার্ড কিংবা সিকিউরিটি কোড প্রয়োগ করে না। ল্যাপটপ, ডেস্কটপ বা অন্য যেকোন ডিভাইসে BIOS পাসওয়ার্ড এর সম্পূর্ণ দায়িত্ব ক্রেতাকে বহন করতে হবে। এটা ওয়ারেন্টির আওতায় পড়বে না।
• ওয়ারেন্টির আওতাধীন নয় এমন যেকোন সার্ভিসের জন্য “কম্পিউটার প্লানেট” মূল্য ধার্য করতে পারবে যা ক্রেতার সম্মতি সাপেক্ষে কার্যকরী করা হবে।
• কার্টিজ, টোনার, হেড, রোলার, ড্রাম, এলিমেন্ট কাভার ইত্যাদি যন্ত্রাংশ ওয়ারেন্টির আওতায় পড়বে না।
• প্রিন্টার এর সাথে অরিজিনাল টোনার, কার্টিজ ব্যাবহার না করলে প্রিন্টারটি ওয়ারেন্টির আওতায় পরবে না।
• প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান কর্তৃক নির্ধারিত কালি, ইংক কার্টিজ বা টোনার কার্টিজ ছাড়া অন্য কালি, ইংক কার্টিজ বা টোনার কার্টিজ ব্যবহার করলে প্রিন্টারটি ওয়ারেন্টির আওতায় পড়বে না।
• মেইনবোর্ড, গ্রাফিক্স কার্ড এবং RAM গায়ে ফাংগাস বা মরিচা থাকলে উক্ত মেইনবোর্ড, গ্রাফিক্স কার্ড বা RAM ওয়ারেন্টির আওতায় থাকবে না।
• গ্রাফিক্স কার্ড দিয়ে যদি ডাটা মাইনিং এর কাজ করা হয় তাহলে উক্ত গ্রাফিক্স কার্ড’টি ওয়ারেন্টির আওতায় থাকবে না।
• মনিটর বা ডিসপ্লে’তে ১ থেকে ৩টি পর্যন্ত ডট হলে ওয়ারেন্টির দাবি গ্রহণ করা হয় না। ৪টি বা তার অধিক ডট হলে ক্রেতা ওয়ারেন্টি দাবি করতে পারবেন।
• মাদারবোর্ড এবং প্রসেসর এর ক্ষেত্রে এক বা একাধিক পিন সম্পূর্ণ বা আংশিক ভাঙ্গা, বাঁকা বা বিকৃত অবস্থায় পাওয়া গেলে পণ্যটি ওয়ারেন্টির আওতায় থাকবে না।
• প্রসেসরের সাথে সর্বরাহকৃত ফ্রি কুলিং ফ্যানের জন্য ওয়ারেন্টি প্রযোজ্য হবে না।
• কোন পণ্যের সিরিয়াল/সিরিয়াল স্টিকার আংশিক বা সম্পূর্ণরূপে মুছে গেলে, উঠে গেলে বা যেকোন কারণে ক্ষতিগ্রস্ত হলে পণ্যটি ওয়ারেন্টির আওতায় পড়বে না।
• কম্বো (যুগল) কিবোর্ড-মাউস (যে সব কিবোর্ড-মাউস একসাথে বান্ডেল হিসেবে বিক্রি হয়) এর ক্ষেত্রে কিবোর্ড বা মাউস যেটাই ক্ষতিগ্রস্ত হউক না কেনো কিবোর্ড-মাউস এবং এর আনুসাঙ্গিক এক্সেসরিজ সমেত ওয়ারেন্টি দাবি করতে হবে। কেবলমাত্র কিবোর্ড বা মাউস আলাদাভাবে ওয়ারেন্টির জন্য উপস্থাপন করা যাবে না।
• প্রিন্টার, স্ক্যানার, রাউটার, সুইচ, এক্সেস পয়েন্ট, টিভি কার্ড ইত্যাদি এবং একই ধরনের পণ্যের পাওয়ার এডাপ্টার ওয়ারেন্টির আওতায় পড়বে না।
• ফটোকপিয়ারের ক্ষেত্রে:

• ফ্রি ইনস্টলেশন (শুধুমাত্র ঢাকার ভিতরে)

• ১ বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি (কোন পার্টসের প্রয়োজন হলে ক্রেতা তার মূল্য বহন করবে)
• রিপ্লেসমেন্ট ওয়ারেন্টি প্রযোজ্য হবে না
• কোন ধরনের সার্ভিস ইস্যুর ক্ষেত্রে ক্রেতা কেবল কনভেয়ান্স বিল বহন করবে
• সার্ভিস ওয়ারেন্টির ক্ষেত্রে যদি কোন যন্ত্রাংশ পরিবর্তন বা সংযোজনের প্রয়োজনীয়তা দেখা দেয় তাহলে ক্রেতা নিজ দায়িত্বে যন্ত্রাংশ সংগ্রহ করবেন। যন্ত্রাংশ যদি বাজারে সহজলভ্য হয় তাহলে অগ্রিম মূল্য পরিশোধ সাপেক্ষে কম্পিউটার প্লানেট এর মাধ্যমে সংগ্রহ করতে পারবেন।
• প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান নির্ধারিত ওয়ারেন্টির মেয়াদ থাকাকালীন বা উত্তীর্ণ হওয়ার পরে কম্পিউটার প্লানেট কর্তৃক প্রদত্ত ফ্রি সফটওয়্যার বা হার্ডওয়্যার টিউনিং এর সময় পণ্যে কোন সমস্যা ধরা পড়লে বা নতুন কোন সমস্যা সৃষ্টি হলে তার জন্য কম্পিউটার প্লানেট দায়ী থাকবে না।
• Apple Mac Book এর নিজস্ব অপারেটিং সিস্টেম মুছে ফেলে বা এর সাথে অন্য অপারেটিং সিস্টেম ইনস্টল (ডুয়েল বুট) করলে পণ্যটি ওয়ারেন্টির আওতায় পড়বে না।